ভ্রমণবন্ধু

আধুনিকতা আর আভিজাত্যের ছোঁয়ায় ‘মাটির বাড়ি’

matir bari1

আধুনিকতা আর আভিজাত্যের ছোঁয়ায় ‘মাটির বাড়ি’

মানুষের জন্ম, মৃত্যু সব কিছুকে ঘিরেই রয়েছে মাটি। তবে ইদানীংকালে মানুষ ব্যস্ত জীবন যাত্রার সাথে সাথে ভুলতে বসেছে মাটির কদর। মাটি অমূল্য হলেও সেই মাটির দাম কিন্তু আমরা দিতে চায় না। প্রকৃতি সৃষ্টির ত্রয়ী উপাদান মাটি, পানি আর গাছ। আর এই তিন উপাদানকে কাজে লাগিয়েছেন প্রকৌশলী আব্দুল নাঈম।

গতানুগতিক যে মাটির বাড়িগুলো আমরা দেখেছি, তিনি তার থেকে একটু সরে গিয়ে আধুনিকতা আর আভিজাত্যের ছোঁয়া দিয়ে বানিয়েছেন ‘মাটির বাড়ি’। তার বাড়ির মূল উপাদান যে মাটি, তা দেখে বোঝার কোনো উপায় নেই। জয়দেবপুরের টর গ্রামে তৈরি হয়েছে এমনই এক বাড়ি।

বিদেশে প্রশিক্ষিত ও আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত এই প্রকৌশলী মাটির টানেই ফিরে এসেছেন দেশে। তিনি জানান, বিদেশে মাত্র ৫-৬ রকম মাটি পাওয়া যায়। সেখানে তিনি আমাদের দেশে খুঁজে পেয়েছেন ১৬ রকমের মাটি। এটা দেখে তিনি আরো অবাক হয়ে যান এবং পুরো উদ্যমে শুরু করে দেন তার কাজ। প্রকৌশলী আব্দুল নাঈমের তৈরি বাড়িতে ব্যবহার করা হয়েছে মাটি, পানি, পাথর, বাঁশ, চুন, দুধ, খড়, পাট-এর মত সহজলভ্য জিনিস। এই বাড়ি রাঙাতে কোনো রাসায়নিক রঙের প্রয়োজন পড়েনি।

এই মাটির কারিগর আরো জানান, এই বাড়িটি মাটি দিয়ে তৈরি হওয়ায় প্রকৃতিগতভাবেই ভূমিকম্প প্রতিরোধক। তাছাড়া এই মাটির বাড়িতে থাকলে মানুষ এমনিতেই সুস্থ থাকবে। প্রকৌশলী আব্দুল নাঈমের ইচ্ছা, এই ধরণের বাড়ি তৈরি শুধু শহুরে সৌখিন মানুষের মধ্যে সীমাবধ্য না রেখে গ্রামীণ জনগণের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার। এই চেষ্টায় তিনি তার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।

Tags

Add Comment

You must be logged in to post a comment.

Sign In ভ্রমণবন্ধু

For faster login or register use your social account.

or

Account details will be confirmed via email.

Reset Your Password